যাদের দোয়া কবুল হয়

২১ নভেম্বর ২০২০ ধর্ম ও জীবন বার পঠিত হয়েছে

ধর্ম ডেস্ক :: দোয়া বা প্রার্থনা দুনিয়া ও আখিরাতের সমস্যা সমাধানের অন্যতম মাধ্যম। তবে দোয়া হতে হবে সঠিক পন্থায়। চাইতে হবে শুধুমাত্র আল্লাহ তাআলার নিকট। তাই মানুষের সমস্যা সমাধানে বেশি বেশি দোয়া করলে আল্লাহ খুশি হন। আল্লাহ তায়ালা বলেছেন, ‘আমাকে ডাকো; আমি তোমাদের উত্তর দেব (তোমাদের প্রার্থনা কবুল করবো)।’ এই আয়াতের আলোকে মানুষের সব ধরনের প্রয়োজনে আল্লাহ তাআলার কাছে প্রার্থনা করা একান্ত কর্তব্য। কিন্তু ক্ষেত্র বিশেষ এমন কিছু লোক রয়েছে, যারা দোয়া করলে, সে দোয়া বিদ্যুৎ বেগে আল্লাহর দরবারে পৌছে যায়। আর আল্লাহ তাআলাও সে দোয়া কবুল করেন। যা তুলে ধরা হলো-

*বিপদগ্রস্ত ও অসুস্থ ব্যক্তির দোয়া।

*আত্যাচারিত (মাজলুম) ব্যক্তির দোয়া।

*সন্তানের জন্য বাবা-মায়ের দোয়া।

*যে সন্তান একনিষ্ঠ মনে বাবা-মায়ের খেদমত করে, সে সন্তানের দোয়া।

*ন্যায়পরায়ণ শাসকের দোয়া।

*মুসাফিরের দোয়া।

*রোজাদার যখন ইফতারের সময় দোয়া করে।

*এক মুসলমানের জন্য অন্য মুসলমানের অনুপস্থিতিতে দোয়া।

*হাজিগণ হজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে যে দোয়া করে।

*আল্লাহর খাঁটি বান্দাদের দোয়া।

সর্বোপরি বান্দার সকল দোয়াই আল্লাহ কবুল করবেন, যদি বান্দা শিরকমুক্ত থেকে একনিষ্ঠ মনে কায়মনোবাক্যে কাকুতি মিনতির সহিত আল্লাহর দরবারে দোয়া করে।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে সঠিক পন্থায় দোয়া করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।