ম্যারাডোনার গল্প নিয়ে চলচ্চিত্র

২৬ নভেম্বর ২০২০ আন্তর্জাতিক, জাতীয়, শীর্ষ সংবাদ, সংবাদ শিরোনাম বার পঠিত হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক: কিংবদন্তি আর্জেন্টাইন ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে নিয়ে তৈরি হয়েছে কয়েকটি চলচ্চিত্র। এরমধ্যে সবচেয়ে আলোচিত তার অদেখা ফুটেজ নিয়ে তৈরি করা ডকুমেন্টারি ‘ডিয়েগো ম্যারাডোনা’। ২০১৯ সালের অক্টোবরে মুক্তি পাওয়া ডকুমেন্টারিটি তৈরি করেছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নির্মাতা আসিফ কাপাডিয়া। মুক্তির পর থেকেই ম্যারাডোনাকে নিয়ে নির্মিত এই ডকুমেন্টারিটি ভক্ত ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়ায়।

১৩০ মিনিটের এই ডকুমেন্টারিতে নেপলসে ম্যারাডোনার জীবনকে তুলে ধরা হয়েছে। ইতালিয়ান ক্লাব নেপোলিতে থাকাকালীন সময়ে ম্যারাডোনার নানা বিরল ফুটেজ ব্যবহার করা হয়েছে এই চলচ্চিত্রে। ম্যারাডোনার নিজের সংগ্রহেই ছিলে ফুটেজগুলো।

ম্যারাডোনার ফুটবলের জাদু উপভোগ করা করা যায় ডকুমেন্টারিতে। বস্তির একজন সাধারণ ছেলে ডিয়েগো থেকে ফুটবলের রাজা ম্যারাডোনা হয়ে উঠার বিষয়টি ছবিতে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। নেপলসে ঘটে যাওয়া অর্ন্তদ্বন্দ্ব এবং বিতর্কগুলোও বাদ যায়নি ডকুমেন্টারি থেকে। ম্যারাডানোকে দেখা গেছে কোকেন গ্রহণ করতে এবং মাফিয়াদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে। নেপোলিতে থাকাকালীন সময়েই ১৯৮৬ সালে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতান এই ফুটবলার। বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হওয়া ম্যাচে বিতর্কিত সেই ‘হাত দিয়ে গোল’ এর ঘটনাও তুলে ধরা হয়েছে।

আর্জেন্টাইন ফুটবল গ্রেটকে নিয়ে আরেকটি আলোচিত চলচ্চিত্র হলো সার্বিয়ান নির্মাতা এমির কুস্তরিকার ‘ম্যারাডোনা’। এটি ২০০৮ সালে মুক্তি পায়। এই চলচ্চিত্রে মাঠের ম্যারাডোনার পাশাপাশি বিভিন্ন গ্রেটদের সাথে তার সম্পর্ক তুলে ধরা হয়েছে। এদের মধ্যে আছেন কিউবান বিপ্লবী নেতা ফিদেল কাস্ট্রোও।

সংবাদটি শেয়ার করতে নিচের “আপনার প্রিয় শেয়ার বাটনটিতে ক্লিক করুন”
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।