৬ বিএনপি নেতা কর্মীর মুক্তি লাভ

৭ আগস্ট ২০১৯ মৌলভীবাজার, সিলেট বার পঠিত হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার :: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল মৌলভীবাজার জেলা শাখার সহ সভাপতি আহমেদ আহাদ, মোঃ আবু বক্কর তালুকদার, জেলা জিয়া মে র আহবায়ক মোনাহিম করিব মেম্বার, বিএনপি নেতা আবুল হোসেন, জেলা ছাত্রদল নেতা শেখ সাহেদ আহমদ ও এমজাদ হোসেন গত ০৬/০৮/২০১৯ইং মাননীয় জেলা ও দায়রা জজ আদালত থেকে জামিন প্রাপ্ত হয়ে ০৭/০৮/২০১৯ইং সকালে মৌলভীবাজার জেলা কারাগার থেকে মুক্তি পান। জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৫ই ফেব্রুয়ারী তারিখে সিলেটে মাজার জিয়ারতের গমন প্রাক্কালে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া শেরপুর পৌছালে তাকে স্বাগত জানানোর জন্য সদর উপজেলার শেরপুর গোলচত্ত¡রে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী সমবেত হয়ে তাহাকে অভ্যর্থনা এবং স্বাগত মিছিল করে। এসময় পুলিশের সাথে তাদের মুখোমুখি ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া হয়। এই ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই সুদেব চন্দ্র সাহা বাদী হয়ে বিএনপি ও অংগ সংগঠনের ৩৯ জনকে আসামী করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছিলেন। এই মামলায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উপরোক্ত ৬ নেতাকর্মী বিগত ২৪/০৭/২০১৯ইং মৌলভীবাজার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পন করে জামিনের প্রার্থনা করলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরন করেন। আসামীগনের পক্ষে নিযুক্ত বিজ্ঞ এডভোকেট সৈয়দ নেপুর আলী জামিন শুনানী করেন। কারামুক্ত নেতাদেরকে মৌলভীবাজার জেল গেইটে ফুল দিয়ে বরন করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক, মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও জেলা তাঁতী দলের আহবায়ক আব্দুর রকিব সাবু, জেলা বিএনপি’র সহ সম্পাদক মুহিতুর রহমান হেলাল, জেলা বিএনপি’র ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক গাজী মারুফ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ও কাউন্সিলর স্বাগত কিশোর দাস চৌধুরী, পৌর তাঁতীদলের আহবায়ক মশিউর রহমান বেলাল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সভাপতি ফরিদ আহমদ, সহ সম্পাদক আফিয়ান আহমদ চৌধুরী শিপু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক জুয়েল আহমদ, শাহাদ মেম্বার, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক শাহ আলম, জেলা ছাত্রদল নেতা মোঃ রিপন মিয়া প্রমুখ।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।