ভারতে লকডাউন ভঙ্গ করলে কান ধরে ওঠবস

২৪ মার্চ ২০২০ অপরাধ, আন্তর্জাতিক, জাতীয়, প্রবাসের খবর, ভারত, শীর্ষ সংবাদ, সংবাদ শিরোনাম, সারাদেশ বার পঠিত হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের উত্তর প্রদেশের শহর মিরাটে লকডাউন ভঙ্গ করে রাস্তায় নামলেই কান ধরে ওঠবস করাচ্ছে পুলিশ। এছাড়া তাদেরকে ‘আমি করোনাভাইরাসের বন্ধু’ কিংবা ‘আমি সমাজের শত্রু’ লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে ধরিয়ে ছবি তুলে সেগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করা হচ্ছে। মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে।ভারতে এ পর্যন্ত ৪৮২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আর মারা গেছে ৯ আক্রান্ত ব্যক্তি। ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে উত্তর প্রদেশসহ অনেক রাজ্য লকডাউন করা হয়েছে।

মসজিদের খাদেম হিসেবে কর্মরত ৪০ বছরের মোহাম্মদ আলিম জানান, প্রতিবেশীদের সঙ্গে ঝগড়ার বিষয়ে অভিযোগ করতে সোমবার রাতে তিনি এক বিধবা ও তার তিন সন্তানকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে থানায় গিয়েছিলেন।আলিম বলেন, ‘থানায় যাওয়ার পর পুলিশের পরিদর্শক আমার হাতে লজ্জা দেওয়ার কাগজটি তুলে দেয় এবং আমার ছবি তোলে। আমি এতে ভয় পেয়ে যাই। কার কাছে অভিযোগ করতে হবে আমি জানি না।’

থানার পুলিশ সদস্যরা তাকে গালিগালাজও করে বলে অভিযোগ করেন আলিম।মিরাট পুলিশ টুইটারে আলিমের হাতে ‘আমি করোনাভাইরাসের বন্ধু’ লেখা একটি প্ল্যাকার্ড ধরিয়ে ছবি তুলে সেটি পোস্ট করেছে তাদের টুইটার পেজে। পরে ছবির ক্যাপশনে লিখেছে, ‘কিছু লোক সমাজের নিরাপত্তার বিষয়টি তোয়াক্কা করে না।পুলিশের কর্মকর্তা অখিলেশ নারায়ন সিং রয়টার্সকে বলেছেন, যারা নির্দেশ মানছে না তাদের ছবিই তোলা হচ্ছে। এ পর্যন্ত লকডাউন ভঙ্গের ২২টি অভিযোগ রেকর্ড করা হয়েছে।তবে আলিমের ব্যাপারে জানতে চাইলে ফোন কেটে দেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।রাজ্যের রাজধানী লখনৌর মালহোর এলাকার পুলিশ চৌকির এক কর্মকর্তা জানান, যারা লকডাউন ভঙ্গ করছে তাদেরকে কান ধরে ওঠবস করানো হচ্ছে।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘তারা ছেলেদের ১০ বার কান ধরে ওঠবস করিয়েছেন।এ ব্যাপারে লখনৌ পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, তাদের কাছে কান ধরে ওঠবস করানোর কোনো অভিযোগ আসেনি বা এ সংক্রান্ত কোনো তথ্য তাদের কাছে নেই।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।