দেশের বাজারে ৫৫৯৯৯ টাকায় স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট টেন লাইট

১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ আইসিটি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বার পঠিত হয়েছে

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক :: দেশের বাজারে সোমবার নতুন গ্যালাক্সি নোট টেন লাইট উন্মোচন করলো স্যামসাং বাংলাদেশ। নোট সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ এই ডিভাইসটি বাংলাদেশে উৎপাদন করা হয়েছে বলে যুগান্তরকে জানিয়েছে স্যামসাং বাংলাদেশের ডেপুটি ম্যানেজার (মার্কেটিং) রাজেশ শর্মা।
গ্যালাক্সি নোট সিরিজের ধারাবাহিকতায় তৈরি, লাইট মডেলের এই ডিভাইসটিতেও রয়েছে প্রিমিয়াম সব ফিচার। যার মধ্যে রয়েছে সর্বাধুনিক সিগনেচার এস পেন, ক্যামেরা প্রযুক্তি, ইমার্সিভ ডিসপ্লে এবং দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সুবিধা। গ্যালাক্সি নোট টেন লাইট ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসটি পাওয়া যাবে ৫৫ হাজার ৯৯৯ টাকায়।
এ নিয়ে স্যামসাং বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল মো. মূয়ীদুর রহমান বলেন, ‘ফোনের পারফরমেন্স ও পাওয়ার থেকে শুরু করে বুদ্ধিমত্তা ও সেবা পর্যন্ত সবকিছুতেই প্রযুক্তিখাতের উদ্ভাবনী সব সেবা প্রদানে আমাদের নিরলস প্রচেষ্টার ফল গ্যালাক্সি নোট টেন লাইট। ব্যবহারকারীদের ভিন্নধর্মী অভিজ্ঞতা প্রদানে গ্যালাক্সি নোট সিরিজ বিশ্বজুড়েই পরিচিত।’
এখন ব্যবহারকারীরা প্রিমিয়াম নোট সিরিজ ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন এবং গ্যালাক্সি নোট ১০ লাইটের সিগনেচার এস পেন তাদের কর্মদক্ষতাও বাড়াতে সহায়তা করবে।
ফোনটিতে থাকা ব্লুটুথ লো-এনার্জির (বিএলই) মাধ্যমে এস পেন- এ ক্লিক করে তরুণরা প্রেজেন্টেশনের স্লাইড নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন, ভিডিও শুরু ও বন্ধ করতে পারবেন এবং ছবিও তুলতে পারবেন। এয়ার কমান্ড তাদের সুযোগ দিবে সহজে সিগনেচার এস পেনের ফিচার ব্যবহারের।
স্যামসাং- এর শীর্ষস্থানীয় ক্যামেরা প্রযুক্তিতে তৈরি গ্যালাক্সি লাইট ডিভাইসটিতেও রয়েছে উদ্ভাবনী ক্যামেরা ফিচার। গ্যালাক্সি নোট টেন লাইটে রয়েছে ১২ মেগাপিক্সলে সেন্সরের ট্রিপল ক্যামেরা সিস্টেম।
আরও রয়েছে ডুয়াল পিক্সেল ওআইএস (অপটিক্যাল ইমেজ স্পেশালাইজেশন) এফ/১.৭ অ্যাপাচারসহ ১২ মেগাপিক্সেল ওয়াইড ক্যামেরা, ১২৩ ডিগ্রি ও এফ/২.২ ১২ মেগালিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড সেন্সর এবং অটো ফোকাস ও এফ/২.৪ অ্যাপাচারে ১২ মেগাপিক্সেল টেলিফটো সেন্সর।
গ্যালাক্সি নোট টেন লাইট ডিভাইসের ক্যামেরা ফিচারে সুপার স্টেডি মোড ও লাইভ ফোকাস মোড ব্যবহার করা হয়েছে। সেলফি তোলার জন্য ফোনটিতে রয়েছে এফ/২.২ অ্যাপাচারসহ ৩২ মেগাপিক্সেল রেজ্যুলেশনের পাঞ্চহোল ক্যামেরা।
স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট টেন লাইটে ৬.৭ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস সুপার অ্যামোলেড প্লাস ইনফিনিটি-ও ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে। যার রেজ্যুলেশন ২৪০০ x ১০৮০পি এবং এর অ্যাসপেক্ট রেশিও ২০:৯। ফোনটিতে ১০ এনএম ৬৪-বিট এক্সিনোস অক্টাকোর প্রসেসর রয়েছে।
ফোনটিতে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে, যা ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফোনটিতে ফাস্ট চার্জ সাপোর্টসহ ৪৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি রয়েছে। অরা ব্ল্যাক ও অরা গ্লো এ দু’টি রঙে ডিভাইসটি বাজারে পাওয়া যাবে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।