দেবশ্রী বিজেপিতে পালাতে চেয়েছেন ৮০ লাখ টাকা দুর্নীতি করে

৬ নভেম্বর ২০১৯ আন্তর্জাতিক বার পঠিত হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ভারতের তৃণমূলের বিধায়ক দেবশ্রী রায়ের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। তার নিজের বিধান সভাতেই তার বিরুদ্ধে ৮০ লাখ টাকার দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।
বেকার যুবকদের স্বনির্ভর করে তুলতে টোটো দেওয়ার নাম করে টাকা তুলে তিনি বেপাত্তা হয়ে গিয়েছেন এমন অভিযোগ উঠেছে। সিপিএমের অভিযোগ, তিনি এই দুর্নীতি করেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে পালাতে চেয়েছিলেন।
সম্প্রতি দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকায় দেবশ্রী রায় ফাউন্ডেশন নামে একটি সংস্থা খুলে তিনি সমাজ সেবামূলক কাজ করছিলেন। সেই কাজেরই অংশ হিসেবে তিনি এলাকার বেকার যুবকদের উপার্জনের জন্য টোটো কিনে দেওয়ার কথা বলেন।
এজন্য রেজিস্ট্রেশন ফি বাবাদ চার হাজার টাকা করে নেওয়া হয়। সিপিএম নেতা কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়ের অভিযোগ, এলাকায় প্রায় দুই হাজার মানুষের কাছ থেকে চার হাজার টাকা করে নেওয়া হয়েছে। এই ৮০ লাখ টাকা তোলার পরই তিনি দিল্লিতে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিতে চেয়েছিলেন।
তৃণমূল ছাড়তে চেয়ে বিজেপি অফিসে গিয়ে বসেছিলেন এমন অভিযোগ ওই সিপিএম নেতার। দীর্ঘদিন ধরেই রায়দিঘিতে তাকে দেখা যায়নি। সে কারণেই ওই এলাকায় তার বিরুদ্ধে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। যাদের কাছ থেকে তিনি টোটো দেওয়ার নাম করে টাকা তুলেছিলেন তারাই এখন টাকা ফেরত চাইছেন অথবা অবিলম্বে টোটো দেওয়ার দাবি করছেন।
এদিকে দেবশ্রী রায় এই টোটো প্রদান কর্মসূচি নেওয়ার সময়ই জানিয়েছিলেন, রেজিস্ট্রেশন করার পর জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি নাগাদ টোটো দেওয়া সম্ভব হবে। তারপরও তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হচ্ছে। তৃণমূলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এটা পুরোপুরি বিরোধীদের চক্রান্ত। তার ওপর দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ভালো কাজকে বানচাল করে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।